পোষ্টকার্ড সিরিজ-৪

১) প্রতি দুপুরে একলা হাটি, নক্ষত্র পুঞ্জের ছিন্নপত্র , নদী শুকিয়ে ক্রমাগত হাঁটতে থাকে শরীরের ভেতর। হেঁটে যায় পথের ধারের বাড়ি, মানুষ, ক্ষেতের ফসিল। তামুকের মতো পুড়তে দেখি স্বদেশ ! পলিমাটির মতো জমিনে জমা পড়ে ক্ষত। মুখোশ ভালোবাসে যে শিশু তাকে গচ্ছিত রাখি আলুথালু নারীর বুকে ,আগুনে কেটে দিলে নিরালা উদ্যান শহরের সান্ধ্য বাতির ঠোঁটে  অসুখ করে ।শরীর বেঁয়ে নেমে আসে […]

Read more

আমার স্মৃতিতে শহীদ মুনীর চৌধুরী: সেলিম জাহান

তাঁকে আমি দেখেছি, কিন্তু তাঁকে আমার দেখা হয় নি। আমার কিশোর বয়সের একেবারে প্রারম্ভে খুব সম্ভবত: পঞ্চাশের দশকের একদম প্রান্তসীমায় আমি তাঁকে প্রথম চাক্ষুষ দেখেছি। তারপর তাঁকে দেখেছি ষাটের দশকের একেবারে শেষদিকে যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে এলাম। বৈবাহিক সূত্রে যখন সত্তুরের দশকের ঠিক মাঝামাঝি সময়ে তাঁর সঙ্গে আমার দেখা হতে পারত, তার ঠিক চারবছর আগেই ১৯৭১ সালের ডিসেম্বর মাসে খুনীঘাতকেরা […]

Read more

দেইল্লা আমার কাছে রাজাকারই, একটা খচ্চর এবং বাস্টার্ড

গতকালের দিনটা আমার জন্য বিশেষ একটি দিন গিয়েছে। আমি এই দিনটাকে প্রতিবছর দারুন ভাবেই অনুভব করি। ৬ই ডিসেম্বর । বাংলাদেশের স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার দিন ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর । আমি প্রতিবার ঢাকা শহরে গেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকাতে সময় কাটাতে যাই। ঢাকা শহরের মানুষগুলো দৌড়ায় , ঘুরে খায় , আড্ডা দেয় কিন্তু এই শহরের বুকের ভেতরেই লুকিয়ে আছে প্রলয়ঙ্করী […]

Read more

পোস্টকার্ড সিরিজ- ২

১) কানের দুলের মতো ভেতরের দ্বন্দ্ব নিয়ে আমি পুষতে দেখেছি কত আনন্দ। দিন শেষে জাবেদার মতো খোলসা করে মেলে ধরেছ শরীর, স্তন পাহারা দেওয়া আগুনের কাছে বন্ধক রাখতে গিয়ে ভুলে গেছো নীতিমালা হলো বালিকা বিদ্যালয়ের স্নানরত শরীর , এবড়ো থেবড়ো ডোমের জামা , পালানো অভিজ্ঞতা নিয়ে খানিক রোয়াকে সঞ্চয় করা বিষ। ২) জমিয়ে রেখেছি আমাদের জালি পোনার চাক , সুখি […]

Read more

দেইল্লা রাজাকার আমার কাছে রাজাকারই, একটা খচ্চর এবং বাস্টার্ড ।

১) গতকালের দিনটা আমার জন্য বিশেষ একটি দিন গিয়েছে। আমি এই দিনটাকে প্রতিবছর দারুন ভাবেই অনুভব করি। ৬ই ডিসেম্বর । বাংলাদেশের স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার দিন ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর । আমি প্রতিবার ঢাকা শহরে গেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকাতে সময় কাটাতে যাই। ঢাকা শহরের মানুষগুলো দৌড়ায় , ঘুরে খায় , আড্ডা দেয় কিন্তু এই শহরের বুকের ভেতরেই লুকিয়ে আছে […]

Read more

পোস্টকার্ড সিরিজ- ১

১) শত ছিন্ন ঢেউ এসে ভেঙে দেয় কুঁড়েঘরের কলসি , আমি ঘুমুতে যাই ,ভেসে উঠে মুখ, তোমার স্বপ্ন , বুকের ভেতরে প্রতিদিনের নদী । আসলে মানুষ প্রতি জন্মে কয়বার ভাঙে ? বুকের ভেতর নালন্দা তার পাশে কার পাণ্ডুলিপি পুড়ে ?   ২) এতো দিন আমি একাকি এঁকেছি নকশী কাথা, বীভৎস হয়ে উঠলে মানুষের ভেতর ক্রনিক যন্ত্রণা নিয়ে গোঙায় রান্না ঘরের […]

Read more

অনির্বাণ সূর্যকান্তের ২ টি কবিতা

১) তোমার নদীর তীরে ভেলা বায় যে শুশক, তার জন্মান্তরের খোলস হলাম। সারারাত জলের দিকে তাকিয়ে তোমার দু চোখের সূর্যোপাসনা দেখতেও আমাকে অন্ধকার চিনতে হয়।   ২) তুমি নিজেকে খুলতে পারছো না, অথচো যে শিক্ষক শুয়ে আছে বুকের ‘পর তার নাম পৃথিবী।। আমি আয়নাকেও শুতে দেখেছি, আমরা চার ভাইবোন, মাকে বলতে শুনতাম গুতুম মাছের মতো এঁটোসেটো বনদেবীর উপাখ্যান ভোরবেলা স্নানের […]

Read more